ওসমানীতে পড়ে আছে সেই কোটি টাকার অ্যাম্বুলেন্স

বিশেষ প্রতিবেদক।।

  সিলেটে অস্বাভাবিক হারে করোনা সংক্রামন বেড়ে যাওয়ায় মানুষ যখন অ্যাম্বুলেন্স, আইসিইউ বেড, হাসপাতালে ভর্তি হওয়া নিয়ে চরম বিপাকে তখন ওসমানী হাসপাতালে একটি আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্স বছর খানেক ধরে পড়ে আছে অব্যবহৃত অবস্থায়। কোটি টাকার এই আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্সটি সিলেট ১ আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেনের প্রচেষ্টায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতাল বরাদ্দ পেয়ে ছিলো।নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে অ্যাম্বুলেন্সটি একটা দিনও তা ব্যবহার করা হয়নি। কাজে লাগেনি করোনায় আক্রান্ত সাধারণ মানুষের।

এটি ব্যবহার না করার যে কারণ বলছেন কর্তৃপক্ষ তা হাস্যকর। ব্যবহারের গাইডলাইন বা নির্দেশনাই দেয়নি স্বাস্থ্য অধিদফতর সেজন্য এটি ব্যবহার করা যাচ্ছে না। এমনকি, ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে দু’টি চিঠি পাঠানো হলেও তার কোন জবাবই দেয়নি তারা।

দেশে মহামারী করোনার ঢেউ আছড়ে পড়ার শুরুর দিকে, প্রায় বছরখানেক আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন সিলেটবাসীর জন্য একটি উন্নতমানের আইসিউই অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করেছিলেন। ইতালির তৈরি এই অ্যাম্বুলেন্সটির দাম কোটি টাকারও বেশি। স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের সাথে কথা বলে তিনি তা সিলেটের করোনা রোগীদের জন্য পাঠালেও অ্যাম্বুলেন্সটি পড়ে আছে অব্যবহৃত অবস্থায়।

বিষয়টি নিয়ে আলাপকালে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক উপ-পরিচালক ও সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য ) ডাক্তার হিমাংশু লাল রায় বলেন, একাধিকবার চিঠি দিলেও সেই গাইডলাইন আজো পাওয়া যায়নি। মানে, এটি কাদের জন্য ব্যবহার করা হবে, ভাড়াইবা কত হবে ইত্যাদির ব্যাপারে আমরা কোন সিদ্ধান্ত আজো পাইনি। আর তাই সেটি অব্যবহৃত অবস্থায়ই আছে।

এর সত্যতাও নিশ্চিত করেছেন ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বর্তমান অস্থায়ী উপপরিচালক ডাক্তার মাহবুব হোসেন। মূলতঃ এক আইসিউই থেকে আরেক আইসিইউতে রোগী নিয়ে যাওয়ার জন্য এই অ্যামবুলেন্সটি প্রয়োজন। তবে এটি কেউ এখনো চায়নি বলে আমরাও দেইনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.