Sylhet Express

বিশ্বনাথে পথিমধ্যে হামলার মামলায় গ্রেফতার ২

0 ৭২

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের নোয়ারাই গ্রামে সরকারি সড়ক জনসাধারণের চলাচলে বাঁধা দিয়ে হামলা করার মামলার দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। সম্প্রতি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার এসআই আহসানুজ্জামান রিগ্যানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ নিজ বাড়ি থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের নোয়ারাই গ্রামের মৃত মাহমদ আলীর পুত্র আবদুর রাজ্জাক (৫০) ও তার (রাজ্জাক) পুত্র হাফিজ মিয়া (১৯)। তাদের বিরুদ্ধে বিশ্বনাথ থানায় দায়ের করা মামলা নং ০২ (তাং ২.০৬.২০ইং) এবং জিআর মামলা নং ১০৮/২০২০ইং। একই গ্রামের রণজিৎ কুমার দেবের পুত্র রন্টু কুমার দেব বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত সরকারি বিভিন্ন বরাদ্ধ প্রদান করে ‘নোয়ারাই পূর্বপাড়া হইতে বিশ্বনাথ-লামাকাজী সিএনবি সড়ক’ পর্যন্ত ১২ ফুট প্রসস্তের সড়কটি জনসাধারণের চলাচলের জন্য উপযুক্ত করা হয়েছে। গত ৯মে নোয়ারাই-নিশ্চিন্তপুর গ্রামের লোকজন যৌথভাবে সড়কের পূনঃনির্মাণ কাজ করতে গেলে বিবাদীরা দা-লাঠি হাতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পূনঃনির্মাণ কাজে বাঁধা প্রদান করেন স্থানীয় সনাতন (হিন্দু) ধর্মালম্বীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। পরবর্তিতে এলাকার মুরব্বীরা বিষয়টি আপোষ-মিমাংশায় নিস্পত্তি করার জন্য সালিশ-বৈঠকের তারিখ নির্ধারণ করলে বিবাদীরা সড়কে চলাচলে বাদীসহ গ্রামবাসীকে বাঁধা ও হুমকি প্রদান অব্যাহত রাখে। এরই মধ্যে গত ৩০মে দুপুর ২টার দিকে বাদীর বাড়িতে আসার পথিমধ্যে দা-লোহার রড তার (বাদী) দুই আতœীয়ের (পবন দেব ও রোপন দেব) উপর অতর্কিত হামলা করে। অতর্কিত ওই হামলায় পবন দেব ও রোপন দেব গুরুত্বর আহত হন। তাদের শোর-চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে এবং সুযোগমত পাইলে খুন করার হুমকি দিয়ে যায়। এরপর এলাকাবাসী আহতদেরকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কপপ্লেক্সে যান।
অভিযুক্ত রাজ্জাক-হাফিজকে গ্রেফতারের সত্যতা স্বীকার করেছেন বিশ্বনাথ থানার এসআই আহসানুজ্জামান রিগ্যান।

মন্তব্য
Loading...