চিকিৎসার সাহায্যের জন্য আকুল আবেদন লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত আনিকের

0 ২৩৯


মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য। সবার আর্থিক সাহায্য সহযোগিতায় বাঁচতে পারে একটি জীবন, অসহায় একটি দরিদ্র পরিবার।সহায় সম্বল যা ছিল তা দিয়ে চিকিৎসা চললেও বর্তমানে কোনোমতেও চলছে না তার চিকিৎসা। নিজের অবস্থার কথা বর্ণনা করতে গিয়ে এভাবেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন আনিক।

লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত আনিক মিয়া সবার কাছে চিকিৎসার জন্য মানবিক সহায়তার হাত বাড়িয়েছেন। আনিক ছাতক উপজেলার জাউয়াবাজার ইউনিয়নের বানায়ত (বড়কাপন) গ্রামের দিনমজুর কমর আলীর ছেলে। ক্যান্সার আক্রান্ত আনিক অবুঝ দু’সন্তান আনিকা তাবাচ্ছুম তাসনিয়া (৬) ও আবি রহমত সিয়াম (৩) এর জনক। গোবিন্দগঞ্জ আব্দুল হক স্মৃতি কলেজের সাবেক ছাত্র আনিক মিয়া রাজনীতিতেও ছিলেন সোচ্চার। তার দরিদ্র পরিবারের প্রত্যাশা ছিল একদিন আনিক সংসারের হাল ধরবেন। অভাব দূর হবে, ফিরবে আর্থিক সচ্ছলতা। কিন্তু লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে পরায় আনিকের সব স্বপ্ন ভেঙ্গে গেছে।

অবুঝ ছেলে ও মেয়ের ভবিষ্যৎ জীবন নিয়ে চিন্তিত মৃত্যুরপথ যাত্রী ক্যান্সারে আক্রান্ত আনিক। অবুঝ-অসহায় সন্তানের মুখে দু’মুঠো ভাত কে দেবে সে চিন্তায় দু’চোখে পানি ঝরছে। প্রায় তিন বছর ধরে এ জটিল রোগে ভুগছেন। তিনি এখন জীবনযুদ্ধ করে যাচ্ছেন বাঁচার জন্য। লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। দীর্ঘদিন সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডাক্তার মুরছালিনের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। বর্তমানে উন্নত চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল হাসপাতালের চিকিৎসক ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডাক্তার সংকর বাবুর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। লিভার ক্যান্সার থেকে মুক্তি পেতে চিকিৎসকরা ৭টি কেমোথেরাপী নিতে পরামর্শ দিলে ৫ টি কেমোথেরাপী নিয়েছেন অনেক কষ্ট করে। আরো ২ টি কেমোথেরাপী ও চিকিৎসা নিতে ১ লক্ষ টাকার প্রয়োজন। আগামী ২০ মে ,একটি কেমোথেরাপী নেওয়ার কথা কিন্তু আর্থিক সচ্ছলতা না থাকার কারণে চোখে অন্ধকার দেখছেন আনিক। বিশাল এ ব্যয় বহন করতে পারছেন না তার দরিদ্র দিনমজুর পরিবার। দিন দিন তার শারীরিক অবস্থা অবনতি ঘটছে। আর্থিক অভাব অনটনের কারণে অনিয়মিতভাবে ঔষধ খাওয়ায় কিছু দিন আগে তার বাম পা অবশ হয়ে গেছে। অর্থের অভাবে মৃত্যুরপথ যাত্রী লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত আনিক মিয়া বাঁচতে চায়। বাঁচার আকুতিতে কান্না জড়িত কন্ঠে আনিক বলেন, মরণব্যাধি লিভার ক্যান্সার আর্থিক অভাব অনটনের কারণে আমাকে ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে নিয়ে যাচ্ছে। আমি আজ অসহায়। আমি বাঁচতে চাই অবুঝ দু’সন্তানের জন্য। আনিক, তার দু’সন্তান ও তার দিনমজুর পরিবার সমাজের বিত্তবান ও দানশীলসহ সকলের কাছে মানবিক সাহায্য কামনা করেছেন। মানবিক সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা আনিকের ব্যবহৃত মোবাইল নং- ০১৭৮৫-৮৭৪৫৫০ (বিকাশ) অথবা ডাচ বাংলা ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং ০১৭৮৫-৮৭৪৫৫০৪।
বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য
Loading...