কমলগঞ্জে পুলিশ ফাঁড়িতে প্রেমিক যুগলের বিয়ে!

গভীর রাতে প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিক। অত:পর স্থানীয়দের হাতে আটক হয়ে পুলিশের হাজতে আটক থেকে পুলিশ ফাঁড়িতেই বিয়ে।

সোমবার (৩০ এপ্রিল) বিকেলে মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, রোববার রাতে প্রেমিক জুবের আহমদ (২২) তার প্রেমিকা পলি বেগমের (১৯) সাথে দেখা করতে যান। এ সময় স্থানীয়রা তাঁদেরকে আটক করেন। আটকের পর স্থানীয় লোকজন তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রেমের ঘটনা নিশ্চিত করেন। অপ্রীতিকর অবস্থা এড়াতে স্থানীয় মেম্বারের নেতৃত্বে প্রেমিক যুগলকে শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে হস্তান্তর করা হয়।

রাতভর পুলিশ ফাঁড়িতে তাদের রাখা হয়। তারা একে অপরকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিলে সোমবার প্রেমিক যুগলদের জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে বিয়ে দেওয়া হয়।

প্রেমিক যুগলরা হলেন পতনঊষার ইউনিয়নের গোপীনগর গ্রামের মো. কাশেম আলীর ছেলে সিএনজি চালক জুবের আহমদ (২২) ও একই ইউনিয়নের মাইজগাঁও গ্রামের আফরোজ মিয়া ওরফে ময়না মিয়ার মেয়ে পলি বেগম (১৯)।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা জানায়, তিন বছরের বেশি সময় ধরে তাদের প্রেম চলছিল ।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ অরুপ কুমার চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন জানান, তাদের উভয়ের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে জেনে তাদের বিয়ে দিতে চাইলে তারা সম্মত হয়। উভয় পরিবারের সম্মতিক্রমে ৫ লাখ টাকা মোহরানা সাব্যস্ত করে কাজী ডেকে সোমবার বিকেলে শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে তাদের বিয়ে পড়িয়ে দেন। এ সময় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিতিতে উভয়পক্ষের মধ্যে মিষ্টিমুখ করানো হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.