এবার বাসের চাকায় বিচ্ছিন্ন হলো চালকের পা

0 ৬৫

রাজধানীতে আবারও বেপরোয়া বাস। এবার এক গাড়িচালক পা হারিয়েছেন। বাসের চাকায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে তাঁর বাঁ পা। আজ শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। পা হারানো ব্যক্তির নাম রাসেল সরকার (২৩)। একটি রেন্ট-এ-কার প্রতিষ্ঠানে তিনি গাড়ি চালাতেন। বাস ও তার চালককে আটক করেছে পুলিশ।

আহত রাসেল সরকারের বাড়ি গাইবান্ধার পলাশবাড়ি এলাকায়। তাঁর বাবার নাম শফিকুল ইসলাম। রাসেল বর্তমানে আদাবর সুনিবিড় হাউজিং এলাকায় থাকেন।

পা হারানো রাসেলকে প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এখন নেওয়া হয়েছে বেসরকারি স্কয়ার হাসপাতালে। রাসেল সরকার প্রথম আলোকে বলেন, একটি কোম্পানি তাঁর গাড়িটি ভাড়া করেছিল। ওই কাজ শেষ করে কেরানীগঞ্জ থেকে তিনি ঢাকায় ফিরছিলেন। ফেরার সময় যাত্রাবাড়ীতে গ্রিন লাইন পরিবহনের একটি বাস তাঁর গাড়িকে ধাক্কা দেয়। পরে গাড়ি থামিয়ে বাসের সামনে গিয়ে বাসচালককে নামতে বলেন রাসেল।

শুরু হয়ে যায় বাসের চালক ও রাসেলের মধ্যে কথা-কাটাকাটি। এ সময় গ্রিন লাইন পরিবহনের চালক বাস চালানো শুরু করেন। তখন রাসেল সরতে গেলে ফ্লাইওভারের রেলিংয়ে আটকে পড়েন। তাঁর পায়ের ওপর দিয়েই বাস চলে যায়। এতে তাঁর বাঁ পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এরপর পথচারীরা রাসেলকে উদ্ধার করে দ্রুত ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যায়।

ঢাকা মেডিকেল পুলিশ বক্সের উপপরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া বলেন, বিচ্ছিন্ন পাসহ রাসেলকে উদ্ধার করে পথচারীরা ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসে। প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর রাসেলের এক সহকর্মী তাঁকে স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে যান।

শাহবাগ থানার এসআই তরিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসটিকে আটক করা হয়েছে। বাসের চালকের নাম কবির মিয়া। এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি। তবে কবিরকে আটক রাখা হয়েছে।

মন্তব্য
Loading...