সৌদি থেকে লাশ হয়ে ফিরলেন বড়লেখার বদরুল

আশরাফুল ইসলাম বদরুল (২২)। প্রায় বছরখানেক আগে স্বপ্ন নিয়ে পাড়ি দিয়েছিলেন সৌদি আরবে। কিন্তু সেই স্বপ্ন পূরণ হওয়ার আগেই লাশ হয়ে ফিরতে হয়েছে বদরুলকে। সৌদিতে দুর্ঘটনায় আহত হয়ে মারা যাওয়ার প্রায় ৩০ দিন পর গতকাল সোমবার রাতে বিমানে করে তাঁর লাশ দেশে আসে। মঙ্গলবার (২৪ এপ্রিল) বেলা আড়াইটায় জানাজা শেষে তাঁর লাশ পারিবাকি কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার দাসেরবাজার ইউনিয়নের সুড়িকান্দি পূর্বপার গ্রামের বাসিন্দা দুবাই প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের দ্বিতীয় ছেলে আশরাফুল ইসলাম বদরুল ২০১৭ সালে সৌদিতে পাড়ি দেন। সেখানে তিনি তাঁর মামার কাছে থাকতেন। সম্প্রতি তিনি রাজমিস্ত্রী হিসেবে কাজ শুরু করেন। গত ০৬ মার্চ সৌদিতে নির্মাণাধীন চারতলা একটি ভবনে কাজের সময় অসাবধানতাবশত তিনি নিচে পড়ে যান। প্রত্যক্ষদর্শীরা গুরুতর আহতবস্থায় উদ্ধার করে তাঁকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৬ মার্চ তিনি মারা যান। তাঁর মৃত্যুর খবর এলাকায় পৌঁছালে নেমে আসে শোকের ছায়া। বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন মা-বাবা।

এদিকে মারা যাওয়ার প্রায় ৩০ দিন পর গতকাল সোমবার (২৩ এপ্রিল) রাতে সিলেট ওসমানী বিমান বন্দরে বদরুলের লাশ এসে পৌঁছায়। সেখান থেকে মরদেহ গ্রামের বাড়িতে আনা হয়। লাশ বাড়িতে আনার পরই বদরুলকে শেষবারের মতো দেখতে বাড়িতে ছুটে যান তাঁর প্রতিবেশীরা।

মঙ্গলবার (২৪ এপ্রিল) বেলা আড়াইটায় টিলাবাড়ি জামে মসজিদ সংলগ্ন মাঠে বদরুলের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার শত শত মানুষ অংশ নেন। জানাজা শেষে তাঁর লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.