বরইকান্দিতে সংঘর্ষে নিহত বাবুল হত্যা মামলায় নিরপরাধ মানুষকে আসামি করা হয়েছে

0 ২৪৩

দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দিতে সংঘর্ষে নিহত বাবুল মিয়ার ভাই সেবুলের দায়েরকৃত মামলায় অনেক নিরীহ ও নিরপরাধ মানুষকে আসামি করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। হত্যার সাথে যাদের ন্যূনতম সম্পৃক্তা নেই তাদেরকে মামলায় আসামি করে ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করা হচ্ছে। সংঘর্ষে নিহত অপর ব্যক্তি মাসুক মিয়ার ভাই ফারুক আহমদ আজ বৃহস্পতিবার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে ফারুক আহমদ বলেন, তাদের পৈত্রিক নিবাস সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের রায়েরগাঁও গ্রামে। তার ভাই মাসুক আহমদ ছোট বেলা থেকেই বরইকান্দি মামার বাড়িতে বসবাস করেন। ঘটনার দিন সস্ত্রীক তিনি সেখানে ছিলেন। ভোরবেলা চিৎকার চেচামেচি শুনে ঘুম থেকে উঠে বাইরে আসেন তিনি। এসময় হামলাকারীদের নিবৃত্ত করতে মধ্যস্থতার লক্ষ্যে সামনে এগুলো আলফু মিয়ার লোকজন তার ভাইকে গুলি করে হত্যা করে। ভাই হারানোর শোকে দিশেহার যখন ঠিক তখনই একটি মহল হত্যাকান্ড নিয়ে ফায়দা হাসিলের ষড়যন্ত্র করছে।
তিনি বলেন, সংঘর্ষে নিহত বাবুলের ভাই সেবুল তাদের সাথে কোনো যোগাযোগ না করেই দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় হত্যাকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত নয় এমন অনেককে আসামি করা হয়েছে, শুধুমাত্র হয়রানি করে তাদের কাছ থেকে ফায়দা হাসিলের জন্য।
সংবাদ সম্মেলনে ফারুক আহমদ তার নিহত ভাইকে নিয়ে সব ধরনের ষড়যন্ত্র থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ করেছেন। একই সঙ্গে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জালালাবাদ ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি মছদ্দর আলী, সাধারণ সম্পাদক আশ্রব আলী, তোয়াব আলী, ফারুক আহমদ, কালাম আহমদ, এম রশিদ আহমদ, এডভোকেট বনশ্রী দাস অপু, অরুণ দেবনাথ সাগর, একে এম মাহমুদুল হাসান সানী, মিফতাহুল হোসেন লিমন। – বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য
Loading...