জৈন্তাপুরে সংঘর্ষ: ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৫২ জনের নামে মামলা

0 ১৭৯

জৈন্তাপুরে ওয়াজ মাহফিলে সংঘর্ষে মাদ্রাসা ছাত্র নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে হরিপুর মাদ্রাসার শিক্ষক মো. আব্দুস সালাম বাদী হয়ে জৈন্তা থানায় এ মামলাটি (নং-১৪(০২)১৮) দায়ের করেন।

মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মোঃ মঈনুল জাকির সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, গতকাল রাতে মাদ্রাসার পক্ষ থেকে জৈন্তাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এখলাছুর রহমানকে প্রধান আসামী করে এ মামলাটি দায়ের করা হয়। এ মামলায় ৫২ জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ১৫০-২০০ জনকে আসামী করা হয়। এ মামলায় এখন পর্যন্ত ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

এ মামলায় যে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তারা হচ্ছেন- কেন্দ্রি ঝিঙ্গাবাড়ী গ্রামের মছুন আলীর ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল হালিম (৪০), কেন্দ্রি গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে কবির আহমদ (৩৫) ও ১নং লক্ষ্মীপুর আমবাড়ী গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে মাহফুজুল ইসলাম (২৭)।

প্রসঙ্গত, সোমবার রাত ১১ টার দিকে মাহফিলে মাওলানা গাজী সোলোমান হোসাইন এর বক্তব্য প্রদানকালে সুন্নি-ওহাবি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে হাফিজ মাওলানা মোজ্জাম্মেল হোসেন নিহত হন। পরে প্রায় অর্ধশতাধিক ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়।

এ মামলার অন্য আসামীরা হলেন- জৈন্তাপুর উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি সাবেক সেনা অফিসার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হান্নান (৫২), সাবেক ইউপি সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মিরন মিয়া (৫৫), মুক্তিযোদ্ধা আফতাব আলী (৫৫), ওয়াজ মাহফিলের প্রধান বক্তা মাওলানা গাজি সুলোমান হুসাইন (৪১), ওয়াজ মাহফিল আয়োজক কমিটির সভাপতি মাওলানা আবুল বাশার (৫৬), শ্রীপুর পাথর কোয়ারীর সাধারণ সম্পাদক দিলদার হোসেন (৩৫), জৈন্তাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি শ্রীপুর পাথর কোয়ারীর সভাপতি আব্দুল আহাদ (৪৫), বাংলাবাজার জামে মসজিদের ইমাম আব্দুন নূর (৪০), হরমুজ আলী (৫৭), সুলেমান হোসেন কন্টু (৪৭), হযরত আলী (৪৩), শরিফ উদ্দিন (২৮), হেলাল আহমদ (৩০), আব্দুল কাইয়ুম (৪০), আবুল খায়ের (৩৮), মাইজুল ইসলাম (৩৩), আব্দুল কাদির (৪০), আলী আসগর (৩৩), নুরু মিয়া (৩৬), আক্তার হোসেন (৩০), হারুন মিয়া হারু (৫৫), মঈনুদ্দিন (৩২), আব্দুল জব্বার (৩৫), মের্শেদ মিয়া (২৭), ফখরুল ইসলাম (৩৫), আছাব আলী (৪০), জাহাঙ্গীর (৩০), ইউপি সদস্য আব্দুল মোতালেব (৪৮), আব্দুল আহাদ (২২), জাকির হোসেন (৪০), সুহেল আহমদ (৩৬), আব্দুল মালিক (৪০), শাহীন (৩০), রুবেল (২৮), আব্দুল আহাদ (৪০), শাহীন (২০), সাদেক (৪০), আবুল (২৫), মাহফুজ (৩০), শামীম (২৭), নজরুল ইসলাম টেইলার (৩৫), ছানা উল্লাহ (৩০), আলী আসাদ (৩০), জাহাঙ্গীর (৩৫), জাহাঙ্গীর মোল্লা (৪০), বাবুল (৩০), সাদেক (৩২), শরিফ (২৫)।

মন্তব্য
Loading...